বিএসআরআই ও এশিয়ান ইউনির্ভাসিটি ফর উইমেন’র গবেষণা সংক্রান্ত সভা ও প্রদর্শনী

0
36
নিউজটি শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিজ্ঞপ্তিঃ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএসআরআই), ঈশ্বরদী, পাবনা এবং এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন (AUW), চট্টগ্রামের মধ্যে তালচাষের (পালমাইরাকালচার) জন্য গবেষণা সহযোগিতা সভা AUW ক্যাম্পাস, চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হয়। উভয় দলই তাল গাছ নিয়ে তাদের গবেষণা এবং তাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা উপস্থাপন করেছে।

বিএসআরআই দেশের একটি অগ্রগামী কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট যেখানে তালসহ বিভিন্ন চিনি ফসলের বহুমুখী ব্যবহার এবং চাষের আধুনিক কলাকৌশলের উপর গবেষণা করে প্রযুক্তি তৈরি করা হয়েছে। বিএসআরআই এর প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মো. সাইয়ুম হোসেন, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও কর্মসূচি পরিচালক, উন্নত মানের তাল ও খেজুরের চারা রোপণ ও বিতরণ কর্মসূচি, জনাব মো. রাশেদুল ইসলাম, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, সরেজমিন গবেষণা বিভাগ এবং জনাব রাইয়ান মীম সায়েম, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগ।

AUW এর তাল চাষ (পালমাইরাকালচার) বিষয়ক গবেষণা দল ২০ জন ছাত্রী গবেষক নিয়ে গঠিত এবং এর নেতৃত্বে আছেন ড. পলরাজ মোসাই সেলভাকুমার, সহকারী অধ্যাপক, রসায়ন, বিজ্ঞান এবং গণিত প্রোগ্রাম। এই দলটি এশিয়ার বিভিন্ন দেশে তাল গাছ/ খেজুর গাছের উপর নানা প্রকার গবেষণা ও উন্নয়ন প্রকল্পের সাথে জড়িত। AUW এর পক্ষ থেকে, ডঃ পলরাজ মোসাই সেলভাকুমার, ডঃ বীনা খুরানা, ডিন (কলা ও বিজ্ঞান), ডঃ ডেভিড টেলর, ডিন (মানবিক) এবং AUW এর ১২ জন ছাত্রী গবেষক (এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন দেশ হতে আগত) এই সভা ও প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করেন।

এই সভা ও প্রদর্শনীতে, উভয় দল এশিয়ান পাম (তাল) সম্পর্কে তাদের জ্ঞান/দক্ষতা উপস্থাপন করেন এবং তাল চাষ ও ব্যবহার সম্পর্কিত বিভিন্ন সমস্যা এবং উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন। বিএসআরআই প্রতিনিধিবৃন্দ AUW তে চলমান তাল বিষয়ক গবেষণার খুটিনাটি সম্বন্ধে জেনে এবং প্রদর্শিত পণ্য দেখে অত্যন্ত আনন্দিত হন এবং ভবিষ্যতে এই গবেষণা ফলাফল তাল চাষের বিস্তার লাভে অত্যন্ত সহায়ক হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। বিস্তারিত আলোচনা শেষে নিম্নলিখিত বিষয়গুলোতে পারস্পারিক সহযোগিতার ক্ষেত্র হিসেবে তারা চিহ্নিত করেন। AUW স্থায়ী ক্যাম্পাসে বা উপযুক্ত জায়গায় পালমাইরা পাম গাছ রোপণে অংশগ্রহণ। AUW তাল গবেষকদের বিএসআরআই-এ শিক্ষা সফর।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি), ফার্মগেট, ঢাকায় যৌথভাবে তালচাষের (পালমাইরাকালচার) উপর প্রদর্শনীর আয়োজন করা হবে যা তালের পরিবেশ বান্ধব পণ্য সম্পর্কে কৃষক, উদ্যোক্তা, নীতিনির্ধারক এবং সকলের মধ্যে সচেতনতা আনবে। বিভিন্ন স্তরের নীতিনির্ধারকদের সামনে সেই প্রদর্শনীতে ডক্টর পলরাজ মোসা সেলভাকুমার উপস্থাপিত ‘পালমিরা সংস্কৃতি: টেকসই উন্নয়ন পরিকল্পনা’ বিষয়ে একটি বিস্তারিত বক্তৃতার আয়োজন। পালমাইরা সংস্কৃতির বিষয়ক যৌথ প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য কনসেপ্ট নোট বা ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট প্রপোজাল (DPP) তৈরি এবং জমা প্রদান।

অবশেষে, ড. মোসাই এবং বিএসআরআই বিজ্ঞানীরা আশা প্রকাশ করেন, এই সমন্বিত উদ্যোগ বাংলাদেশে তালচাষীদের আর্থ-সামাজিক ‍উন্নয়নের লক্ষ্যে গবেষণা ও উন্নয়নে একটি উল্লেখযোগ্য এবং গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক হতে চলেছে।

#SN


নিউজটি শেয়ার করুন।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here