রাউজানে বিতর্কিত শরণংকর ভিক্ষুর প্রবেশ, প্রশাসনের বাধায় ফেরত গেলেন ঢাকা

0
23
নিউজটি শেয়ার করুন।
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রাঙ্গুনিয়ার সেই বিতর্কিত ভিক্ষু শরণংকর থের রাউজানে আসলে প্রশাসনের বাধায় তাকে পূণরায় ঢাকা ফেরত যেতে হয়। শনিবার (১০ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় উপজেলার ১০নং পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের বৃহত্তর হোয়ারা পাড়া ধূতাঙ্গসাধক বৌদ্ধ বিহারে শরণংকর ভিক্ষু ৪ জন শ্রমন নিয়ে আসে।

শরণংকর ভিক্ষু আসার সংবাদ পেয়ে ধূতাঙ্গসাধক বৌদ্ধ বিহারে উপস্থিত হয় চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল, রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) অতীশ দর্শী চাকমা, রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল হারুন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন আহমেদ।

সকাল ১১ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা পর্যন্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তারা শরণংকর ভিক্ষুসহ বৌদ্ধ বিহারে অবস্থান করেন। এসময় শরণংকর ভিক্ষু রাউজানের ধূতাঙ্গসাধক বিহারে থাকতে চাইলে উপস্থিত প্রশাসনিক কর্মকর্তারা তাকে বাধা দেন। পূণরায় যেখান থেকে এসেছে সেখানে ফেরত যেতে বলেন। এসময় শরণংকর ভিক্ষু রাউজানের তার নিজের বিহারে (ধূতাঙ্গসাধক শরণংকর বৌদ্ধ বিহার) থাকার অনুরোধ জানান।

দীর্ঘ আলোচনার শেষে সন্ধ্যা ৭ টার সময় বিহারে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে মাইক্রোবাসে (হাইস) শরণংকর থের ও সাথে আসা শ্রমনরা রাউজান ত্যাগ করেন।

জানা যায়, সকাল ১০ টার দিকে ঢাকা কমলাপুর ধর্ম রাজিক বৌদ্ধ বিহার থেকে কাউকে না জানিয়ে রাউজানে আসে তারা। স্থানীয় ইউপি সদস্য ফুটন বড়ুয়া ও ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন আহমেদ শরণংকরের আসার পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে জানান। সকাল ১১ টায় কর্মকর্তারা সেখানে উপস্থিত হয়। এসময় থানার অন্যান্য পুলিশ সদস্য ও আনসার বাহিনী উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া থানার শরণংকর ভিক্ষু বিভিন্ন কারণে বিতর্কিত হয়। মহানবী (সা.) কে কটূক্তি, হিন্দুদের জায়গা দখলসহ অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। মামলা হয় থানায়। গত ৮ মাস ধরে বিতর্কের কারণে রাঙ্গুনিয়া ছেড়ে ঢাকা কমলাপুর ধর্ম রাজিক বৌদ্ধ বিহারে আছেন।

#SmileNews #HA


নিউজটি শেয়ার করুন।
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here