রাউজানে প্রতীমাকে রংতুলিতে সাঁজাতে ব্যস্ত শিল্পীরা, মা দুর্গাকে প্রণাম করবে ২৩২ মন্ডপে

0
89
নিউজটি শেয়ার করুন।
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  

মো.আরফাত হোসাইন, রাউজান, চট্টগ্রামঃ করোনার কঠিন এই সময়ের মাঝেই কিছুদিন পর বাজবে দুর্গাপূজার সুর। সারাদেশের মত রাউজানেও চলছে পূজার প্রস্তুতি। শুরু হয়েছে উপজেলা, ইউনিয়নে সভা-সমাবেশ। প্রতীমা তৈরির কাজও শেষের দিকে। প্রতীমাকে রংতুলিতে সাঁজাতে ব্যস্ত সময় পার করছে প্রতীমা শিল্পীরা। 

সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজাকে ঘিরে থাকে নানা আয়োজন। প্রতিবছর ব্যাপকভাবে দুর্গাপূজার উৎসব করলেও এবার করোনার কারণে সীমিত আকারে করতে হবে পূজার আয়োজন। রাউজানেও তার ব্যতিক্রম নয়। ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ১১টি স্বাস্থ্য বিধি তৈরি করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ। যা মেনে চলতে হবে সবাইকে।

রাউজান উপজেলায় প্রতিবছরের ন্যায় ২৩২ টি মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয়া দুর্গাপূজা। রাউজান উত্তর ও দক্ষিণে ২৩২ টি মন্ডপের স্থানগুলো পরিদর্শন করেছে পূজা উদযাপন কমিটির নেতাকর্মিরা। প্রস্তুতি শেষে আগামি ২২ অক্টোবর ষষ্ঠীতে দেবী দুর্গার আমন্ত্রণের মাধ্যমে শুরু হবে দুর্গাপূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। ২৩ অক্টোবর মহাসপ্তমী, ২৪ অক্টোবর মহাষ্টমী, ২৫ অক্টোবর মহানবমী শেষে ২৬ অক্টোবর বিজয়া দশমী ও প্রতিমা বিসর্জন করা হবে। এরই মধ্যদিয়ে শেষ হবে পাঁচ দিনের শারদীয়া দুর্গোৎসব।

রাউজান উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুমন দে জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পূজার উৎসব পালন করা হবে। থাকবে না আলোকসজ্জা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্যে পূজা মন্ডপে স্বেচ্ছাসেবক টিম থাকবে। তদারকি করা হবে সকল কার্যক্রম। আমরা প্রশাসনের সাথে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পূজার কর্মকান্ড পরিচালনা করবো।

তিনি আরও বলেন, রাউজানের ২৩২ টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে। দেশের উপজেলারমধ্যে সর্বাধিক পূজা মন্ডপ রাউজানেই। রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরীর একান্ত সহযোগিতায় প্রতিবছর অত্যন্ত আনন্দের সাথে শারদীয়া দুর্গোৎসব পালন করা হয়।

দুর্গাপূজার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের সাথে মত বিনিময় সভা করেছেন রাউজান উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দ। গত মঙ্গলবার সকালে রাউজান থানা প্রাঙ্গণে এক মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (রাউজান-রাঙ্গুনিয়া সার্কেল) আনোয়ার হোসেন শামীম।

তিনি বলেন, করোনার কারণে পূজা উদযাপনে সরকার যে নির্দেশনা দিয়েছে তার বাইরে কেউ যেতে পারবে না। সকল নির্দেশনা মেনেই পূজার আয়োজন করতে হবে। করোনার প্রকোপ ঠেকাতে সবাইকে কাজ করতে হবে।

#SmileNews #HA


নিউজটি শেয়ার করুন।
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here